জুলাই ১৪, ২০২৪ ১:২০ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপল মধ্যপ্রাচ্যের ৬ দেশ

১ min read

ইরানের দক্ষিণাঞ্চলের হরমুজগান প্রদেশে শক্তিশালী ৬ দশমিক ৩ ও ৬ দশমিক ৪ মাত্রার জোড়া ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে দক্ষিণের এই প্রদেশের রাজধানী বন্দর আব্বাসে বেশ কিছু বাড়িঘর ধ্বংস হয়েছে বলে দেশটির সরকারি সংবাদসংস্থা আইএসএনএ জানিয়েছে। এদিকে, ইরানে আঘাত হানা এই ভূমিকম্প মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ও শারজাহ শহর, কাতার, বাহরাইন, ওমান এবং সৌদি আরবেও অনুভূত হয়েছে বলে খবর দিয়েছে খালিজ টাইমস।

রোববার স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৩৮মিনিটের দিকে ইরানের দক্ষিণের বন্দর আব্বাস শহর ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছে। স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে আইএসএনএ বলছে, ইরানে আঘাত হানা জোড়া ভূমিকম্পের মাত্রা রিখটার স্কেলে ছিল ৬ দশমিক ৩ ও ৬ দশমিক ৪। এতে বন্দর আব্বাসে বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে অন্তত একজনের প্রাণহানি ঘটেছে।

হরমুজগান প্রদেশের রাজধানী বন্দর আব্বাসের উত্তরপশ্চিমের ৫৪ কিলোমিটার দূরে ভূমিকম্পের উৎপত্তি হয়েছে। ভূমিকম্পের এই উৎপত্তিস্থল দুবাই শহর থেকে ২৭৮ কিলোমিটার উত্তরে, বলছে খালিজ টাইমস।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপসংস্থা ইউএসজিএস বলছে, রোববারের এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ৩। বন্দর আব্বাসের ৫৪ কিলোমিটার উত্তরপশ্চিমে ভূপৃষ্টের প্রায় ১০ কিলোমিটার গভীরে ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তি হয়েছে। ভূমিকম্পটি অগভীর হওয়ায় দেশটিতে ক্ষয়ক্ষতি বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।

অন্যদিকে, ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র (ইএমএসসি) ও ইরানের সরকারি টেলিভিশন বলছে, রোববার ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় হরমুজগান প্রদেশের বন্দরনগরী বন্দর আব্বাসে সাড়ে ৬ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। প্রথমদিকে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ৬ দশমিক ১ বলা হলেও হালনাগাদ তথ্যে সেই মাত্রা বাড়িয়েছে ইএমএসসি।

আইএসএনএ বলছে, ইরানে আঘাত হানা এই ভূমিকম্পে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই, আবু ধাবির পাশাপাশি কাতার, বাহরাইন, ওমানের কিছু অংশ এবং সৌদি আরবও কেঁপেছে। বন্দর আব্বাসে বেশ কিছু বাড়িঘর ধ্বংসের খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় এক কর্মকর্তা ইরানের সরকারি টেলিভিশনকে বলেছেন, হরমুজগান প্রদেশের দক্ষিণের কয়েকটি শহরে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। ওই এলাকা পরপর দু’বার কেঁপে উঠেছে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় উদ্ধারকারী দলের সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

ভূমিকম্পের জন্য বিপজ্জনক বেশ কিছু ফাটল লাইনে অবস্থান করছে ইরান। যে কারণে দেশটিতে প্রায়ই মাঝারি থেকে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানছে। অনেক সময় একেবারে কম মাত্রার ভূমিকম্পের আঘাতেও বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির মুখোমুখি হচ্ছে দেশটি।

২০০৩ সালের ডিসেম্বরে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের বাম শহরে এক ভূমিকম্পে প্রায় ৩১ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটে। ৬ দশমিক ৬ মাত্রার শক্তিশালী সেই ভূমিকম্পে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয় বাম। তবে ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প ইরানে আঘাত হেনেছিল ৮৫৬ বছর আগে; ওই ভূমিকম্পে দেশটিতে প্রায় ২ লাখ মানুষের প্রাণ যায়।

সূত্র: রয়টার্স, খালিজ টাইমস, বিএনও নিউজ।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!