এপ্রিল ১৩, ২০২৪ ১১:০৩ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ আর নেই

১ min read

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান আর নেই। শুক্রবার আমিরাতের প্রেসিডেন্ট ৭৩ বছর বয়সে মারা গেছেন বলে দেশটির প্রেসিডেন্ট কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

আমিরাতের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা ওয়াম এক টুইট বার্তায় বলেছে, প্রেসিডেন্ট কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে দেশের পতাকা অর্ধনমিত করে ৪০ দিনের সরকারি শোক পালনের ঘোষণা দিয়েছে। শোক পালনের পাশাপাশি ফেডারেল ও স্থানীয় পর্যায়ে, মন্ত্রণালয়ে এবং সরকারি-বেসরকারি খাতের সংস্থাগুলো তিন দিন বন্ধ থাকবে।

শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান বেশ কয়েক বছর ধরে নানা ধরনের শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন। যে কারণে দীর্ঘদিন ধরে সরকারি কর্মকাণ্ড থেকে দূরে ছিলেন তিনি।

প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে তার ভাই ও আবু ধাবির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন জায়েদ আমিরাতের ডি-ফ্যাক্টো শাসক হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তার উত্তরসূরীর ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে আনুষ্ঠানিক কোনও ঘোষণা দেওয়া হয়নি।

২০০৪ সালে আমিরাতের প্রথম প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের মৃত্যুর পর তার ছেলে শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেন। এর এক দশক পর তিনি স্ট্রোকের শিকার হন, তখন থেকেই তাকে জনসম্মুখে খুব বেশি দেখা যায়নি।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অবস্থিত বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু টাওয়ারটির নাম প্রয়াত শাসকের নামে বুর্জ খলিফা রাখা হয়। শেখ খলিফা সংযুক্ত আরব আমিরাতের দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট এবং আবু ধাবির ১৬তম শাসক ছিলেন।

১৯৪৮ সালের ৭ সেপ্টেম্বর আমিরাতের আল মুওয়াইজি ফোর্টে জন্মগ্রহণ করেন শেখ খলিফা। আমিরাতের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম প্রেসিডেন্ট শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের জ্যেষ্ঠ পূত্র ছিলেন তিনি।

তার মা ছিলেন শেখা হেসা বিনতে মোহাম্মদ বিন খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। তার পুরো নাম ছিল খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান বিন জায়েদ বিন খলিফা বিন শাখবুত বিন থেয়াব বিন ঈসা বিন নাহিয়ান বিন ফালাহ বিন ইয়াস।

বনি ইয়াস উপজাতীয় কনফেডারেশনের আল বু ফালাহ উপজাতি এবং আল নাহিয়ান শাসক পরিবারের প্রভাবের কেন্দ্র ছিল আল মুওয়াইজি গ্রাম। পিতার নির্মিত শহরের প্রথম স্কুল আল আইনে শিক্ষা লাভ করেছিলেন শেখ খলিফা। প্রয়াত পিতা শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের কর্মকাণ্ডে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত ছিলেন তিনি।

বিশ্বের বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠীর মানুষের বসবাসের অন্যতম এক আধুনিক রাষ্ট্র হিসাবে সংযুক্ত আমিরাতকে গড়ে তোলেন শেখ খলিফা।

আমিরাতের সংবিধান অনুযায়ী, প্রেসিডেন্ট মারা যাওয়ায় দেশের ভাইস–প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করবেন। বর্তমানে দুবাইয়ের শাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন শেখ মোহাম্মদ।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!