ডিসেম্বর ২, ২০২২ ৪:১৭ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

মসজিদে নববীতে শাহবাজদের দেখে ‘চোর চোর’ স্লোগান পাকিস্তানিদের

মুসলিম লীগ নেতা শাহবাজ শরিফ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরবে গেছেন। সঙ্গে রয়েছেন একঝাঁক মন্ত্রী, দলীয় নেতা ও পরিবারের সদস্য। তিনদিনের সফরে গত বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে সৌদিতে পা রাখেন তারা। পরে নামাজ পড়তে যান মসজিদে নববীতে। কিন্তু সেখানে অনভিপ্রেত ঘটনার সাক্ষী হতে হয়েছে শাহবাজদের। পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী-মন্ত্রীদের দেখেই তুলকালাম শুরু করেন একদল পাকিস্তানি হজ পালনকারী। খবর ডনের।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, মহানবী (স)-এর মসজিদে শাহবাজ ও তার সঙ্গীদের দেখে ‘চোর চোর’ স্লোগান শুরু করেন একদল পাকিস্তানি। আরেক ভিডিওতে মসজিদের ভেতর পাকিস্তানের নতুন তথ্যমন্ত্রী মরিয়ম আওরঙ্গজেব এবং জাতীয় পরিষদের সদস্য শাহজাইন বুগতির উদ্দেশে কিছু লোককে গালিগালাজ করতে দেখা যায়। অন্য একটি ভিডিওতে এক হজপালনকারীকে বুগতির চুল পেছন থেকে টেনে ধরতে দেখা গেছে।

পরে এক ভিডিওবার্তায় মরিয়ম আওরঙ্গজেব অভিযোগ করেছেন, এ ঘটনা একটি ‘নির্দিষ্ট গোষ্ঠী’র কাজ। তিনি বলেন, আমি এ ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তির নাম বলছি না। কারণ আমি এই পবিত্র ভূমিকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে চাই না।

মদিনায় অবস্থিত মসজিদে নববী হজরত মুহাম্মদ (সা.) প্রতিষ্ঠিত মসজিদ। গুরুত্বের দিক থেকে মসজিদুল হারামের পরেই মসজিদে নববীর স্থান। মহানবি (স.) হিজরত করে মদিনায় যাওয়ার পর এই মসজিদ নির্মিত হয়। মহানবির বাসগৃহের পাশেই মসজিদে নববী নির্মিত হয়েছিল।

ইসলামাবাদে সৌদি দূতাবাসের তথ্য বিষয়ক পরিচালকের বরাতে জিও নিউজ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবারের ওই ঘটনায় মসজিদে নববীর পবিত্রতা লঙ্ঘনের অভিযোগে কয়েকজন পাকিস্তানি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

মুসলিমের জন্য অত্যন্ত পবিত্র এ মসজিদে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তান উলামা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান তাহির মাহমুদ আশরাফি। তিনি বলেছেন, ২৭ রমজানে মসজিদে নববীতে নোংরা স্লোগান ও অভিযোগ তোলার পরিবর্তে মাথা এবং কণ্ঠস্বর নিচু করা উচিত ছিল।

পাকিস্তানের ধর্মীয় পণ্ডিত মাওলানা তারিক জামিলও বলেছেন, পবিত্র মসজিদটিতে বিক্ষোভ ‘ইসলামে গ্রহণযোগ্য’ নয়।

এ ঘটনার জন্য সদ্য ক্ষমতাচ্যুত ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফকে (পিটিআই) দায়ী করেছেন কেউ কেউ। নবনিযুক্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারির বোন আসিফা ভুট্টো-জারদারি অভিযোগ করেছেন, পিটিআই ‘অসহনশীলতা ও বিভক্তি’ উসকে দিচ্ছে।

অবশ্য পিটিআই সাধারণ সম্পাদক আসাদ উমর জোর দিয়ে বলেছেন, পবিত্র স্থানগুলোর পবিত্রতা রক্ষা প্রত্যেকের জন্যই আবশ্যক।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!