ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪ ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ওয়াশিংটনের বাড়ি বিক্রি করলেন কমলা

১ min read

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ১৮ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলারে নিজের বাড়ি বিক্রি করে দিয়েছেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১৬ কোটি টাকা। স্থানীয় সময় সোমবার (৪ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট।

এদিকে কমলা হ্যারিসের বাড়ি বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাত দিয়ে পৃথক এক প্রতিবেদনে আরেক মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফোর্বসও বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। প্রতিবেদনে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, বিক্রি করে দেওয়া এই বাড়িটি ২০১৭ সালের অক্টোবরে ১৭ লাখ ৫০ হাজার ডলারে কিনেছিলেন কমল্যা হ্যারিস ও তার স্বামী ডগ এমহফ।

যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির ওয়েস্ট এন্ড এলাকায় অবস্থিত এই বাড়িতে দু’টি বেডরুম ও দু’টি বাথরুম রয়েছে। ছয়মাস আগে বাড়িটি বিক্রির ঘোষণা দেওয়া হলেও সম্প্রতি সেটি সম্পন্ন হয়।

মার্কিন রিয়েল এস্টেট ওয়েবসাইট জিলও’র তথ্য অনুযায়ী, ১ হাজার ৭৩০ বর্গফুটের এই বাড়িটির জন্য গত এপ্রিলে ১৯ লাখ ৯৫ হাজার মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় পৌনে ১৭ কোটি টাকা) দাম চেয়েছিলেন কমলা হ্যারিস ও ডগ এমহফ।

তবে এই দামে বিক্রি না হওয়ায় গত জুলাই মাসে মূল্য কমিয়ে ১৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার নির্ধারণ করেন তারা। অবশ্য বাড়িটি বিক্রি হলেও তাৎক্ষণিকভাবে ক্রেতার পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন কমল্যা হ্যারিস। এর মাসখানেক পর অর্থাৎ মার্চ মাসে ৮ লাখ ৬০ হাজার ডলারে সান ফ্রান্সিসকোর একটি অ্যাপার্টমেন্ট বিক্রি করে দেন হ্যারিস। টানা কয়েক দশক ওই অ্যাপার্টমেন্টটির মালিক ছিলেন কমল্যা হ্যারিস ও তার স্বামী ডগ এমহফ। ১৯৯৮ সালে ২ লাখ ৯৯ হাজার ডলারে অ্যাপার্টমেন্টটি কিনেছিলেন তারা।

ফোর্বস বলছে, একটি বাড়ি ও একটি অ্যাপার্টমেন্ট বিক্রি করে দেওয়ার পরও কমল্যা হ্যারিস ও ডগ এমহফ দম্পতির আরও বেশ কয়েকটি সুন্দর বাড়ি রয়েছে। এরমধ্যে একটি আবার মার্কিন সরকারের সৌজন্যে পাওয়া।

বর্তমানে তারা ওয়াশিংটন ডিসির ইউএস নেভাল অবজারভেটরিতে বসবাস করেন। এটি সরকারিভাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্টের বাসভবন।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!