জুন ২২, ২০২৪ ৬:০৫ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

এডিট করুন হোয়াটসঅ্যাপে পাঠানো মেসেজ

১ min read

সাধারণত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে প্রাপককে পাঠানো মেসেজ একবার সেন্ড করে ফেললে তা আর এডিট করা যায় না। অপর প্রান্তের ব্যক্তিকে পাঠানো মেসেজে শব্দগত বা অর্থগত কোনো ভুল থাকলে সেটি সংশোধনেরও উপায় নেই বললেই চলে। সেক্ষেত্রে পুনরায় শুদ্ধ শব্দ লিখে মেসেজ পাঠাতে হয়। তবে এবার হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য সুসংবাদ। এখন থেকে হোয়াটসঅ্যাপে কাউকে মেসেজ পাঠানোর পর তা এডিট করা যাবে।

সম্প্রতি ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হোয়াটসঅ্যাপের স্বত্বাধিকারী মার্ক জাকারবার্গ।

সেই পোস্টে তিনি জানিয়েছেন, হোয়াটসঅ্যাপে এখন থেকে মেসেজ পাঠানোর ১৫ মিনিটের মধ্যে তা এডিট করা যাবে। সেই পোস্টে তিনি একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ইংরেজিতে বেস্ট অব লাক (Beast of luck) লিখতে গিয়ে অতিরিক্ত এ (a) ব্যবহার করা হয়েছে। যা ইতোমধ্যে সেন্ড করা হয়ে গেছে। তবে সেই ভুল বানানের ওপর ক্লিক করে অতিরিক্ত এ (a) অক্ষরটি ডিলিট করে দিয়ে শুদ্ধভাবে Best of luck লেখা যাচ্ছে বলে দেখিয়েছেন জাকারবার্গ।

dhakapost

সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপে একের পর এক নতুন সব ফিচার যুক্ত হচ্ছে। কয়েক ঘণ্টা আগেও হোয়াটসঅ্যাপের নতুন তিনটি ফিচার সংযুক্ত করা হয়। সেগুলো হলো:

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট লক : ব্যবহারকারীর ফোন অন্য কারও হাতে থাকলেও যেন সুরক্ষিত থাকে সে জন্যই এ ফিচার চালু করা হবে। নির্দিষ্ট কিছু চ্যাট লক করার সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা। মূলত ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার কারণেই ফিচারটি চালু করছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকে হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাস শেয়ার : হোয়াটসঅ্যাপের স্ট্যাটাসে ব্যবহারকারীরা যা শেয়ার করবেন, সেটা সরাসরি শেয়ার করা যাবে ফেসবুকেও। ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুকের ক্ষেত্রে ফিচার চালু রয়েছে। এবার আসছে হোয়াটসঅ্যাপেও। এজন্য অ্যাপ ছেড়ে ব্যবহারকারীকে বের হতে হবে না।

ভয়েস নোট ট্রান্সক্রাইব : হোয়াটসঅ্যাপে আসা ভয়েস নোট প্লে অর্থাৎ চালু না করেও এ ফিচারের সাহায্যে জেনে নিতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। এ নতুন পরিষেবার নাম ভয়েস ট্রান্সক্রিপশন ফিচার। ফলে ইয়ারফোন ব্যবহার না করে এবং ভয়েস নোট চালু না করেও বিষয়বস্তু জেনে নেওয়া যাবে। এর মাধ্যমে ভয়েস নোটটি ট্রান্সক্রিপট করে নিতে পারবেন। অর্থাৎ ভয়েস মেসেজ লিখিত আকারে দেখতে পারবেন।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!