এপ্রিল ১৪, ২০২৪ ১১:৪২ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

এবার ‘মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে মাদক ও নারী সরবরাহের অভিযোগ

১ min read

আবারও বিতর্কের শিরোনামে মহেশ ভাট। অভিনেত্রী লভিনা লোধের অভিযোগ মহেশ ভাটই ইন্ডাস্ট্রির ডন। তার তত্ত্বাবধানেই বলিউডে মাদক ও নারীর কারবার চলে। ভিডিওর মাধ্যমে এমনই অভিযোগ করেছেন লভিনা।

শুক্রবার রাতে ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও আপলোড করেন লভিনা। অভিনেত্রী জানান, তিনি ভিডিওটি নিজের আর পরিবারের নিরাপত্তার জন্য তৈরি করেছেন। মহেশ ভাটের ভাগনে সুমিত সবরওয়ালের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। আর তিনি ডিভোর্সের মামলা করেছেন। কারণ লভিনা জানতে পেরে গিয়েছিলেন তিনি আমায়রা দস্তুর, সপ্না পাব্বির মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মাদক জোগান। শুধু তাই নয় তার ফোনেও অনেক মেয়ের ছবি থাকে যা তিনি পরিচালকদের দেখান। অর্থাৎ সুমিত মেয়ের জোগানও দেন। আর এই সমস্ত কিছু মহেশ ভাট জানেন। মহেশ ভাট ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে বড় ডন। এই পুরো চক্রান্তটি মহেশই নিয়ন্ত্রণ করেন। তাদের কথা মতো না চললে আপনার জীবন নষ্ট করে দেয় বলেও অভিযোগ করেন লভিনা।

ভিডিওতে আরও অভিযোগ করেন লভিনা। বলেন, কত যে অভিনেতা, পরিচালক, সংগীত পরিচালকের ক্যারিয়ার মহেশরা নষ্ট করেছেন তার হিসেব নেই। মানুষের অজান্তেই ফোন করে কাজের সম্ভাবনা নষ্ট করে দেন মহেশ। কেউ জানতেও পারেন না। লভিনা যেদিন থেকে মামলা করেছেন সেদিন থেকে তার পেছনে পড়েছে। নানাভাবে তার জীবনে উৎপাত সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করেছেন লভিনা। বাড়ি থেকে উৎখাত করার চেষ্টাও করেছে। কোনো থানা তার অভিযোগ নিচ্ছিল না বলেও জানান। লভিনা জানান, তার বা তার পরিবারের কোনো ক্ষতি হলে দায়ী থাকবেন মহেশ ভাট, মুকেশ ভাট, সুমিত সবরওয়াল, সাহিল সায়গল, কুমকুম সায়গল।

লভিনার সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মহেশ ভাটের আইনজীবী। বলিউড পরিচালকের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেবেন বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, এর আগে প্রয়াত সুশান্ত সিং রাজপুত এবং তার প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সম্পর্ক নষ্ট করার অভিযোগও উঠেছিল মহেশের বিরুদ্ধে। সুশান্তের মৃত্যুর পর মুম্বাইয়ের থানায় গিয়ে জবাবদিহিও করেছিলেন মহেশ। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল নিন্দার মুখে পড়তে হয়েছিল তাকে। এবারও বলিউড পরিচালককে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন নেট দুনিয়ার একাংশ।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!