ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪ ৫:৪০ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ফিলিস্তিন সংকটের স্থায়ী সমাধান চায় বাংলাদেশ

১ min read

ইসরায়েলি আগ্রাসনের ফলে ফিলিস্তিনে চলমান সংকটের স্থায়ী সমাধানের গভীর প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর গুরুত্বারোপ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। একই সঙ্গে ফিলিস্তিনের প্রতি বাংলাদেশের সরকার ও জনগণের অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সময় শনিবার (২০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উগান্ডার কাম্পালায় ১৯তম জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের (ন্যাম) শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র ও প্রবাসীমন্ত্রী রিয়াদ আল মালিকির বৈঠক হয়। বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক মীর আকরাম উদ্দীন আহম্মদ স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বৈঠকে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, তার দেশের প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অদম্য সমর্থনের কথা স্মরণ করে সেই ধারাবাহিতাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এবং এই সংকটময় মুহূর্তে ফিলিস্তিনের জনগণের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ফিলিস্তিনের মন্ত্রী আল-মালিকিকে বাংলাদেশের সরকার ও জনগণের অব্যাহত সমর্থনের আশ্বাস দিয়ে ড. হাছান মাহমুদ ফিলিস্তনে চলমান সমস্যার স্থায়ী সমাধানেরর প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। একই সাথে ভ্রাতৃপ্রতিম ফিলিস্তিনিদের প্রয়োজনীয় কূটনৈতিক ও আইনি সহায়তা এবং আরও মানবিক সহায়তা অব্যাহত রাখারও প্রতিশ্রুতি দেন।

এদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ ১৯-২০ জানুয়ারি জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের ১৯তম শীর্ষ সম্মেলনে এবং ২১-২২ জানুয়ারি ৭৭ জাতি গ্রুপ ও চীনের তৃতীয় দক্ষিণ সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এতে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মুহাম্মদ এ মুহিত এবং কেনিয়া ও উগান্ডায় বাংলাদেশের হাইকমিশনারসহ অন্যরা রয়েছেন।

ন্যাম সম্মেলনের ফাঁকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী থান সুয়ের সঙ্গেও বৈঠক করেন। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ও দ্বিপক্ষীয় গুরুত্বপূর্ণ অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। এছাড়াও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে সাইডলাইন বৈঠক করেছেন।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!