জুন ২১, ২০২৪ ১১:৩১ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ৫৬ জন

১ min read

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়া ৫৬১ জন প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেছেন। তার মধ্যে আপিলের প্রথম দিন রোববার (১০ ডিসেম্বর) ৫৬ জন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

জানা গেছে, প্রার্থিতা ফিরে পাওয়া ৫৬ জনের মধ্যে ৩৩ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী। তাদের মধ্যে বেশির ভাগই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হিসাবে নির্বাচনে লড়বেন। বাকি ২৩ জন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনীত প্রার্থী।

নির্বাচন ভবনে আপিল শুনানির প্রথম দিনে ৯৪টি আপিলের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। আপিলে প্রায় ৬০ শতাংশ প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এদিন ৫৬ জন প্রার্থীর আপিল মঞ্জুর করা হয়। এর ফলে তারা বৈধ প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন। ৩২টি আপিল নামঞ্জুর এবং ছয়টির সিদ্ধান্ত অপেক্ষমাণ রাখা হয়েছে।

ঢাকা-৫ কামরুল হাসান (রিপন), টাঙ্গাইল-২ আসনে ইউনুছ ইসলাম তালুকদার, টাঙ্গাইল-৭ রাফিউর রহমান খান ইউসুফ জাই, জামালপুর-২ জিয়াউল হক জিয়া, গোপালগঞ্জ-১ কাবির মিয়া, চট্টগ্রাম-১ মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, চট্টগ্রাম-২ মোহাম্মদ শাহজাহান, চট্টগ্রাম-৮ আবদুচ ছালাম, চট্টগ্রাম-১৫ আব্দুল মোতালেব, বরগুনা-১ খলিলুর রহমান, মেহেরপুর-২ মোখলেসুর রহমান, রংপুর-২ বিশ্বনাথ সরকার, ফরিদপুর-১ মাহমুদা বেগম ও মোহাম্মদ আরিফুর রহমান, মাদারীপুর-২ ইউসুফ আলী সুমন, যশোর-২ এসএম হাবিবুর রহমান, যশোর-৩ মোহিত কুমার নাথ, যশোর-৬ আজিজুল ইসলাম, কুষ্টিয়া-১ ফিরোজ আল মামুন, বরিশাল-৬ মোহাম্মদ শামসুল আলম, কুমিল্লা-৫ সাজ্জাদ হোসেন ও এম এ জাহের, বরগুনা-১ নুরুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শরীয়তপুর-১ গোলাম মোস্তফা, শরীয়তপুর-২ খালেদ শওকত আলী, নীলফামারী-১ জয়নাল আবেদীন, গাইবান্ধা-২ শাহ সারোয়ার কবীর, গাইবান্ধা-৫ ফারজানা রাব্বী বুবলী, কিশোরগঞ্জ-১ সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলাম, নেত্রকোনা-৫ আনোয়ার হোসেন, ঝালকাঠি-১ আবুল কাসেম মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ-৬ হালিমুল হক মীরু এবং বগুড়া-৩ আফজাল হোসেন।

আপিলে কিশোরগঞ্জ-৩ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাসিরুল ইসলাম খান প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টির পাঁচজন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। তারা হলেন-নোয়াখালী-২ আসনের তালেবুজ্জামান, যশোর-১ আসনের আক্তারুজ্জামান, খুলনা-৬ আসনের শফিকুল ইসলাম মধু, কুমিল্লা-২ আসনের এটিএম মঞ্জুরুল ইসলাম ও গাজীপুর-১ আসনের এম এম নিয়াজ উদ্দিন।

এছাড়া তৃণমূল বিএনপির খুলনা-৪ আসনের শেখ হাবিবুর রহমান, সিলেট-২ আসনে আব্দুর রব এবং সুপ্রিম পার্টির ঢাকা-২০ আসনের মিনহাজ উদ্দিন ও ময়মনসিংহ-১১ আসনের এবিএম জিয়া উদ্দিন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। বিএনএফের মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের মমতাজ সুলতানা আহমেদ ও মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের বাচ্চু শেখের আপিলও মঞ্জুর হয়েছে।

যশোর-৩ আসনের জাকের পার্টির মহিদুল ইসলাম, জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের যশোর-৩ আসনের প্রার্থী শেখ নুরুজ্জামান ও পাবনা-২ আসনের ডলি সায়ন্তনীও প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। বাংলাদেশ কংগ্রেসের লালমনিরহাট-২ আসনের মো. দেলাব্বর হোসেন, কুড়িগ্রাম-৪ আসনের প্রার্থী মো. আব্দুল হামিদ, বগুড়া-৪ আশরাফুল আলম (হিরো আলম) ও নেত্রকোনা-২ আসনের বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী মো. আজহারুল ইসলাম খান, ইসলামী ফ্রন্টের ঢাকা-১৩ আসনের মো. জাফর ইকবাল নান্টু এবং জামালপুর-১ আসনের তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী মো. গোলাম মোস্তফা প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে (বেজমেন্ট-২) আপিলের শুনানি প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ১১ ডিসেম্বর ৯৫-২০০ নম্বর আপিল, ১২ ডিসেম্বর ২০১-৩০০ নম্বর আপিল, ১৩ ডিসেম্বর ৩০১-৪০০ নম্বর আপিল, ১৪ ডিসেম্বর ৪০১-৫০০ নম্বর আপিল এবং ১৫ ডিসেম্বর ৫০১ থেকে অবশিষ্ট আপিলের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!