মে ২৯, ২০২৪ ৪:৫৯ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিতে চায় ইরান

১ min read

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আন্তর্জাতিক আদালতে নিতে চায় ইরান। নেদারল্যান্ডের হেগেতে অবস্থিত আন্তর্জাতিক আদালতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মামলা করা হবে। ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এমন পরিকল্পনা রয়েছে তেহরানের।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশেই ওই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। সে কারণেই ট্রাম্পকে বিচারের মুখোমুখি করতে চায় তেহরান।

ইরান যদি আন্তর্জাতিক আদালতে এ বিষয়ে মামলা করে তবে তা হবে ওয়াশিংটনের জন্য লজ্জাজনক। সৌদির ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাসোগির হত্যাকাণ্ডের পর গত বছর একটি প্রতিবেদন লিখেছিলেন জাতিসংঘের তদন্তকারী অ্যাগনেস কালামার্ড। তার মতে, জেনারেল সোলেইমানির হত্যাকাণ্ড সম্ভবত আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করেছে।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইরানের মামলা তেহরানের সাম্প্রতিক সরকারবিরোধী বিক্ষোভকে ভিন্ন মাত্রায় প্রভাবিত করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গত বুধবার সোলেইমানির হত্যাকাণ্ডের প্রতিশোধ হিসেবে ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালায় তেহরান। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তেহরানের ইমাম খামেনি বিমানবন্দরের কাছেই ইউক্রেনের একটি যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হয়।

প্রথমদিকে বিমান বিধ্বস্তের বিষয়টি অস্বীকার করা হলেও পরে এর দায় স্বীকার করেছে ইরান। এদিকে, ১৭৬ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের অধিকাংশ যাত্রীই ছিল ইরানের নাগরিক। ফলে কর্তৃপক্ষের মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে ইরানিরা।

এখন যদি ইরান আন্তর্জাতিক আদালতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বিচারের মুখোমুখি করতে পারে তবে জনগনের ক্ষোভ কিছুটা হলেও কমবে বলে আশা করা হচ্ছে। ইউক্রেনের ওই বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার তিনদিন পর ইরান জানিয়েছে, ভুলবশত বিমানটি ভূপাতিত করা হয়েছে। এদিকে বুধবার ইউক্রেনের ওই বিমানটিতে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতের একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ইরানি বিপ্লবী গার্ডের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

ইরানের গণমাধ্যমে দেশটির বিচার বিভাগের মুখপাত্র গোলাম হোসেইন ইসমাইলির বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সোলেইমানিকে হত্যার ঘটনা এক ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড। আমরা এ বিষয়ে ইরাক এবং আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা দায়ের করতে চাই।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!