অক্টোবর ১, ২০২২ ৪:৫৫ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

লোকসভা নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে : মমতা

লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর প্রথমবার সংবাদ সম্মেলনে এসে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল শনিবার দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে বলেন, ভোটে বিজেপি যা টাকা খরচ করেছে, তা যেকোনো কেলেঙ্কারিকে হার মানাবে।

তিনি আরও বলেন, বিজেপি টাকা ঢোকানোর জন্যই বারবার প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বদল করেছে। তাছাড়া প্রশাসন এবং কমিশনের সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করেছে। রাজনীতিতে ধর্মকে ব্যবহার করেছে, কমিশন কিছুই বলেনি। আমাদের কোনো অভিযোগের ভিত্তিতে কমিশন পদক্ষেপ নেয়নি। তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে ইভিএমে কারচুপির অভিযোগও তোলেন।

পশ্চিমবঙ্গে ২২টি আসনে জিতেছে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপির কাছে আসন খুইয়েছে। গতবার বিজেপি যেখানে ২২টি আসন পেয়েছিল এবার পেয়েছে ১৮টি। বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়িয়ে ভোট জয়ের চেষ্টা করেছে বিজেপি। আর গোটা বিষয়টিতে সাহায্য করেছে নির্বাচন কমিশন।

অন্যদিকে সাধারণ জনগণের উদ্দেশ্যেও তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘সাধারণ মানুষের জন্য একটু বেশিই কাজ করে ফেলেছি। এত কাজ করা হয়তো উচিৎ হয়নি। এবার দলের জন্য বেশি সময় দেব।’

তিনি আক্ষেপের সুরে আরও বলেন, ‘মানুষ দুটাকা কেজি চাল পেয়েছে। স্বাস্থ্য সাথী, সবুজ সাথী সবই পেয়েছে। তারপরও কেউ খুশি নয়। ইশতেহারের সব প্রতিশ্রুতিই পূরণ করা হয়েছে। তারা (বিজেপি) তো কিছুই করেনি। তাই এবার না হয় দলীয় কাজেই বেশি মন দেব।’

সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দলের প্রত্যেকের কাছে পদ ছাড়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছি। কিন্তু তারা সবাই আমায় চায়। আমার চেয়ারের প্রয়োজন নেই। তবে একটা শর্তে আমি কাজ চালিয়ে যাব। যদি সবাই একক শক্তিতে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করে।’ আগামী ৩১ মে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে তিনি ফের বৈঠকে বসবেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!