মে ৩০, ২০২৪ ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ড্রোন বোমা বিস্ফোরণে রক্ষা পেলেন ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট

১ min read

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো লাইভ বক্তব্য দেওয়ার সময় ড্রোন বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্মকর্তারা। তবে হামলা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো। ৪ আগস্ট, শনিবার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজধানী কারাকাসে সেনাবাহিনীর ৮১তম বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

বিবিসির খবরে জানানো হয়, সামরিক বাহিনীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর ওই অনুষ্ঠানটি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছিল। তাতে দেখা যায়, প্রেসিডেন্ট বক্তব্য দেওয়ার সময় হঠাৎ ওপরের দিকে তাকান। এরপরই অডিও বন্ধ হয়ে যায়। সম্প্রচার বন্ধ হওয়ার আগে দেখা যায়, অনেক সৈনিক ছোটাছুটি করছেন।

দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট যেখানে দাঁড়িয়েছিলেন, তার ওপরে বোমা ভর্তি দুইটি ড্রোনের বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। তবে কোনো গ্রুপ ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

যোগাযোগমন্ত্রী রদ্রিগেজ হামলার জন্য ডানপন্থী বিরোধী দলকে দায়ী করেছেন। তার ভাষ্য, ভোটে হারার পর তারা আবার এখানেও হেরেছে।

প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে হত্যা করতেই ওই হামলা চালানো হয়েছিল। ওই হামলায় সাতজন সৈনিক আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেছেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো।

বিরোধীদের দাবি, নিকোলাস মাদুরো দেশটির বিচার বিভাগকে ব্যবহার করে বিরোধীদের দমন নির্যাতন করছেন। পরে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রেসিডেন্ট মাদুরো জানান, একটি উড়ন্ত বস্তু তার সামনে বিস্ফোরিত হয়, এটা বড় বিস্ফোরণ ছিল। এর কিছুক্ষণ পর আরও একটি বিস্ফোরণ ঘটে।

প্রেসিডেন্ট মাদুরোর দাবি, তাকে হত্যায় প্রতিবেশী কলম্বিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের উসকানিতে এটি ভেনেজুয়েলার ‘একটি ডানপন্থী গ্রুপের ষড়যন্ত্র’। ‘কোনো সন্দেহ’ নেই কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান মানুয়েল সান্টোস ‘এই হামলার পেছনে’ রয়েছেন।

এর আগে গত বছরের জুনে এক হেলিকপ্টারের পাইলট দেশটির সুপ্রিম কোর্টে গ্রেনেড হামলা করেছিলেন। পাইলট অস্কার পেরেজ দাবি করেন, প্রেসিডেন্ট মাদুরোর বিরুদ্ধে মানুষকে জাগিয়ে তুলতে তিনি ওই হামলা করেছিলেন। চলতি বছরের জানুয়ারিতে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তার মৃত্যু হয়।

গত মে মাসে তেল সমৃদ্ধ এই দেশটিতে চরম অর্থনৈতিক মন্দার ভেতর পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন নিকোলাস মাদুরো।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!