জুলাই ২৫, ২০২৪ ১২:২৩ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

১০ জন আইসিটি মেধাবী শিক্ষার্থী বাছাই করল হুয়াওয়ে

১ min read

শীর্ষস্থানীয় আইসিটি সল্যুশন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী তাদের সবচেয়ে বড় সিএসআর প্রোগ্রাম ‘সিডস ফর দ্য ফিউচার’ প্রতিযোগিতা শুরু করে। এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে অংশ নিতে বাংলাদেশের শীর্ষ ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মোট ১০ জন আইসিটি মেধাবী শিক্ষার্থী চূড়ান্ত করেছে হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেড।

শিক্ষার্থী বাছাই প্রক্রিয়ায় প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, সিনিয়র শিক্ষক এবং হুয়াওয়ের বিশেষজ্ঞ দল নিয়ে পৃথক পৃথক বিচারক প্যানেল গঠন করা হয়। প্রতিযোগিতার মাধ্যমে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দুই জন করে মোট ১০ জন শিক্ষার্থীকে বাছাই করেন প্যানেল সদস্যরা।

বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে চূড়ান্ত হওয়া ১০ জন শিক্ষার্থীরা হলেন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সারাহ সিনথিয়া গোমেজ ও মো. রাকিব রহমান শাওন, ইসলামিক ইনউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি (আইইউটি) থেকে আসিফ নেওয়াজ ও বখতিয়ার হাসান, খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) থেকে নুজহাত নাওয়ার ও মো. রাকিবুল হাসান, রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) থেকে আফসানা আফরিন ও মো. আজমাইন ইয়াকিন সৃজন এবং চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) থেকে দিবা দাস ও মনিরুল ইসলাম মিশকাত।

জানা গেছে, ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বের ৯৬টি দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা সিডস ফর দ্য ফিউচার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে। বিশ্বের ২৮০টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৩০ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উপকৃত হয়েছে, যাদের মধ্যে দুই হাজার ৭০০ জন শিক্ষার্থীকে চীনের শেনজেন-এ হুয়াওয়ের হেডকোয়ার্টারে শিক্ষা সফরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের চিফ টেকনিক্যাল অফিসার জেরি ওয়াং বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে যে ১০ জন শিক্ষার্থকে বাছাই করা হয়েছে তাদের মেধা দেখে আমি খুবই উল্লসিত। এ জন্য তাদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। এ দেশেআইসিটি মেধাবীদের জন্য সিডস ফর দ্য ফিউচারের মতো প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। মূলত আইসিটি বিষয়ে দক্ষতা বাড়াতে, আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে চাকরির হাতে কলমে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে এবং চীনের ভাষা ও সংস্কৃতি সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা দিতেই এই মেধাবী শিক্ষার্থীদের চীনে নিয়ে যাওয়া হবে, যা তাদেরকে বিশ্বের প্রতিযোগিতামূলক চাকরিক্ষেত্রের জন্য প্রস্তুত হতে সহায়তা করবে। আমি বিশ্বাস করি, এসব মেধাবী শিক্ষার্থীরা সামনে এগিয়ে যাবে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবে।’

বাংলাদেশ থেকে বাছাই করা ১০ জনই চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। আগামী সেপ্টেম্বরের ২য় সপ্তাহে চীনের প্রযুক্তি ও সংস্কৃতি সম্পর্কে বিস্তর ধারণা দিতে তাদেরকে দুই সপ্তাহের জন্য চীন ভ্রমণে নিয়ে যাওয়া হবে।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!