এপ্রিল ১১, ২০২১ ১০:১১ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ করপোরেশন, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

ডায়াবেটিস কমাবে পানীয়

ব্লাড সুগার নিয়ে ডায়াবেটিস রোগীদের সবচেয়ে বেশি চিন্তা থাকে। ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণের জন্য কেউ ওষুধ খান, কেউ ইনসুলিন ব্যবহার করেন। স্বাস্থ্যকর খাদ্যভ্যাস অনুসরণ করলেই আর এ নিয়ে তেমন চিন্তিত হতে হয় না।

খাদ্যের পাশাপাশি এমন কিছু পানীয়ও আছে, যা আপনার উপকারে আসতে পারে। কিন্তু সেগুলো কোমল পানীয় বা ফলের জুস নয় বরং স্বাস্থ্যকর চা এবং জুস। দেখে নিন চারটি পানীয়ের গুণাগুণ

১) করল্লার জুস

তেতো সবজি হিসেবে করল্লাকে এড়িয়ে চলেন অনেকেই। অথচ তা ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে দারুণ কাজ করে! করল্লার জুস শরীরের ইনসুলিনকে সক্রিয় করে তোলে। ফলে ব্লাড সুগার সঠিক উপায়ে খরচ হয়, চর্বিতে রূপান্তরিত হয় না। এতে ওজনও কমে। অন্যদিকে এ জুসে থাকে কারানটিন নামের উপাদান যা সরাসরি ব্লাড সুগার কমায়। প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস কাঁচা করল্লার জুস আপনার কাজে আসতে পারে।

২) মেথি পানি

এক গবেষণায় দেখা গেছে, এক গ্লাস গরম পানিতে ১০ গ্রাম মেথি ভিজিয়ে রেখে পরে সেই পানি পান করলে টাইপ-টু ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ সহজ হয়। এই পানি ব্লাড সুগার কমায়, হজম ধীর করে, শর্করা এবং চিনি শরীরে শোষিত হতে সাহায্য করে।

৩) বার্লি

বার্লিতে প্রচুর ফাইবার বা খাদ্য আঁশ থাকে, এ কারণে তা ডায়াবেটিস রোগীর জন্য উপকারী।  তা রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ স্থিতিশীল করে। তবে উপকার পেতে হলে অবশ্যই চিনি না মিশিয়ে বার্লি পান করতে হবে। বার্লিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে বলে তা অন্যান্য রোগকেও দূরে রাখে।

৪) গ্রিন টি

বিএমসি ফার্মাকোলজি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা যায়, সুস্থ এবং ডায়াবেটিক- উভয় ধরণের ইঁদুরেই ব্লাড সুগার কমায় গ্রিন টি।  তবে এ বিষয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন।

সুস্থ থাকতে হলে নিয়মিত পান করুন এ পানীয়গুলো।  তবে অবশ্যই নিজের ডাক্তারের সাথে কথা বলে নিন। এর পাশাপাশি সঠিক খাদ্যাভ্যাস অনুসরণ এবং ব্যায়াম করতে ভুলবেন না।

সূত্র: এনডিটিভি

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!