মে ২৯, ২০২৪ ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

অনন্তের সিনেমা থেকে বাদ পড়লেন হিরো আলম

১ min read

অনন্ত জলিল তার নতুন সিনেমায় হিরো আলমকে নিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে তার সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছেন। এর কারণ হিসেবে জানা যায়, কিছুদিন আগে নায়ক জায়েদ খানের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে যান হিরো আলম। তাদের সেই ঝামেলা মেটাতে এগিয়ে আসেন জনপ্রিয় অভিনেতা অনন্ত জলিল। তাদের মিটমাটের খবরও জানিয়েছিলেন অনন্ত জায়েদ-আলমকে সঙ্গে নিয়ে ছবি দিয়ে।

কিন্তু তার কয়েক দিন যেতে না যেতেই হিরো আলম আবার জায়েদ খানের সমালোচনা করতে শুরু করেন। এজন্য অনন্ত তার নতুন সিনেমা থেকে হিরো আলমকে বাদ দিয়েছেন।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ নিয়ে অনন্ত জলিল লেখেন, ‘কিছুদিন আগে আমি নিজ উদ্যোগে জায়েদ খানের সঙ্গে হিরো আলমকে মিল করিয়ে দিয়েছিলাম। প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও তাদেরকে নিয়ে একসঙ্গে লাঞ্চ করেছিলাম। মীমাংসা করে দেওয়ার পরেও একই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় হিরো আলম মন্তব্য করছেন যা মোটেও কাম্য নয় ।

আমার এত ব্যস্ততার মাঝেও আমি তাকে পাশে বসিয়েছিলাম, সে আমার মর্যাদা বোঝে নাই। আমার মর্যাদা যেহেতু বোঝে নাই তাই আমি চাই না ভবিষ্যতে তার দ্বারা আমার মর্যাদা ক্ষুন্ন হোক।

আমি চাচ্ছিলাম, তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে সহযোগিতা করার, যাতে করে তার উপকার হয়। এ ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য মানুষের সঙ্গে আমার কাজ করা সম্ভব না। তাই আমি আর তাকে নিয়ে সিনেমা বানাবো না। পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি যেটি দিয়েছি সেটি আমি চাইছি না। সেটি তাকে আমি দিয়ে দিলাম।’

স্ট্যাটাসে তিনি আরও লেখেন, ‘চলচ্চিত্র পরিবারের সকল গুণীজনরা হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা না বানানোর জন্য আপত্তি জানাচ্ছেন। রিসেন্টলি তার কিছু অশ্লীল ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সকলেই আবারো আমাকে নিষেধ করছেন, তাকে নিয়ে সিনেমার না বানানোর জন্য। সবসময় আমি বিব্রত হচ্ছি, হিরো আলমের এসব বিতর্কিত বিষয় গুলোর জন্য।

দীর্ঘদিন যাবৎ আমি চলচ্চিত্র অঙ্গনে সম্মানের সহিত কাজ করে আসছি। চলচ্চিত্রের প্রতিটি সংগঠনের সাথে ভালো সম্পর্ক আছে, প্রতিটি সংগঠনই আমাকে সম্মানের চোখে দেখে। তাই এই সম্মান রক্ষার্থে, বিতর্কিত কাউকে নিয়ে আমি সিনেমা বানাতে চাই না।

চলচ্চিত্রের কোনো সংগঠনই চাচ্ছে না যে আমি হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা বানাই। চলচ্চিত্রের প্রত্যকটি সংগঠনের সম্মানার্থে আমিও চাই না বিতর্কিত কাউকে নিয়ে সিনেমা বানাতে।’

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!