এপ্রিল ১৮, ২০২৪ ৫:৪১ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

আসামের এনআরসি বাংলাদেশকে বিপদগ্রস্ত করার চক্রান্ত: ফখরুল

১ min read

ভারতের আসাম রাজ্যের বিতর্কিত নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) বাংলাদেশকে বিপদগ্রস্ত করার চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ১১ সেপ্টেম্বর, বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হচ্ছে না মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সরকার রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে পারছে না। কারণ, তাদের সেই বৈধতা নাই, সাহস নাই।’

তিনি বলেন, ‘আজকে আসাম থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে- অনুপ্রবেশকারীদের খুঁজে বের করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। আমরা পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই- স্বাধীনতার পরে কোনো বাংলাদেশি কখনো ভারতে যায়নি। গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে বাংলাদেশকে আবারও বিপদগ্রস্ত করার জন্য।’

সরকারকে ‘অবৈধ’ আখ্যা দিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই সরকার ভোট ডাকাতি করে জোর করে ক্ষমতায় বসে আছে। তারা অন্যায়ভাবে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। কারণ একটাই- তিনি বাইরে থাকলে এসব অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবেন।’ সরকারের লুটপাটের বিষয় তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আপনারা দেখছেন কীভাবে লুট করছে, কীভাবে দুর্নীতি করছে। দুর্নীতির টাকা বিদেশে পাচার করে তারা সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলছে। জনগণের প্রতি তাদের কোনো জবাবদিহিতা নাই।’

কারাবন্দি খালেদা জিয়া খুবই অসুস্থ জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলে এই  সরকারকে পরাজিত করতে হবে।’

জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আসুন, নিজেদের অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য, ভোটের অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য, কথা বলার অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য এই সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই।’

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে অংশ নেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন ও আহমেদ আযম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুজিবুর রহমান সরোয়ার, খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!