আগস্ট ১৫, ২০২২ ১০:১২ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

বাংলাদেশের বিমান ছিনতাইয়ের খবর বিশ্ব গণমাধ্যমে

ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দুবাইগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন উড়োজাহাজ ময়ূরপঙ্খী ছিনতাইয়ের চেষ্টার খবর আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে গুরুত্বসহ প্রকাশিত হয়েছে। বিশ্বের প্রভাবশালী বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম বাংলাদেশে উড়োজাহাজ ছিনতাই চেষ্টার ঘটনাকে ব্রেকিং নিউজ আকারে প্রকাশ করেছে।

১৪২ জন যাত্রী ও ৫ জন ক্রু নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের নতুন উড়োজাহাজ ময়ূরপঙ্খী ঢাকা থেকে দুবাইয়ে রওনা দেয় রোববার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে। চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে এক ছিনতাইকারী পিস্তল হাতে বিমানের ককপিটে প্রবেশের চেষ্টা করে। পাইলট ও কেবিন ক্রুরা বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে ফ্লাইটটি জরুরিভিত্তিতে শাহ আমানতে অবতরণ করান।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স ‘বিমান বাংলাদেশের একটি ফ্লাইট ছিনতাইয়ের চেষ্টা, যাত্রীরা নিরাপদ’ শিরোনামে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, দুবাইগামী বিমান বাংলাদেশের একটি ফ্লাইট ছিনতাইয়ের চেষ্টার পর চট্টগ্রামে সেটি জরুরি অবতরণ করেছে। বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মিরাজ বলেছেন, বিমানের ১৪২ যাত্রীকে নিরাপদে বের করে আনা হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া ‘বাংলাদেশে দুবাইগামী বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা নস্যাৎ করে কেবিন ক্রুরা’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় ইংরেজি দৈনিক দ্য ন্যাশনাল ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুবাইগামী একটি ফ্লাইট ছিনতাইয়ের চেষ্টা, নিশ্চিত করেছেন এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তারা’ শিরোনামে খবর প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, এক বন্দুকধারী বিমানটির ককপিটে ঢোকার চেষ্টা করেছে। 

‘ছিনতাইয়ের চেষ্টা, বাংলাদেশে বিমানের জরুরি অবতরণ’ শিরোনামে এক প্রতিবেদনে স্কাই নিউজ বলছে, ককপিটে বন্দুকধারীর অপ্রীতিকর ঘটনার পর বিমান বাংলাদেশের ফ্লাইট বোয়িং-৭৩৭ চট্টগ্রামে জরুরি অবতরণ করেছে। এতে বলা হয়েছে, কমান্ডো অভিযান চালিয়ে বিমানের ভেতরে আটকা দুই কেবিন ক্রু উদ্ধার করা হয়েছে। তবে অভিযানে অস্ত্রধারী যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন।

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি স্টার শিরোনাম করেছে ‘বাংলাদেশে মাঝ আকাশে বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা, সেনাবাহিনীর অভিযান।’ এতে বলা হয়েছে, ছিনতাই চেষ্টায় বাধা দেয়ার সময় অস্ত্রধারী ছিনতাইকারী বিমান বাংলাদেশের এক ক্রুকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়েছেন। তবে কেউ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন কি-না তা নিশ্চিত নয়। 

এছাড়াও ভারতের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমস, ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি, কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক টাইমস, ফরাসী বার্তাসংস্থা এনডিটিভি-সহ বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যম বাংলাদেশের এই উড়োজাহাজ ছিনতাইয়ের খবর গুরুত্ব-সহ প্রকাশ করেছে।

বিমান ছিনতাইকারী কমান্ডো অভিযানে নিহত

শাহ আমানতে দুবাইগামী ফ্লাইট ময়ূরপঙ্খী ছিনতাইয়ের চেষ্টাকারী কথিত মাহাদি প্যারা কমান্ডো অভিযানে নিহত হয়েছেন। মাত্র আট মিনিটের কমান্ডো অভিযানে তাকে পরাভূত করা হয় বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন সেনা কর্মকর্তা এয়ার ভাইস মার্শাল মুফিদুল আলম।

রোববার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে ৯টার দিকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তারা এসব তথ্য জানান।

সেনা কর্মকর্তা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী সেনা কমান্ডোরা চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান পরিচালনা করেছে। প্রথমে ছিনতাইকারীকে গ্রেফতারের আহ্বান জানানো হলেও তিনি কমান্ডোদের ওপর চড়াও হন। এ সময় আমাদের সঙ্গে গোলাগুলিতে তিনি আহত হন। এরপর বাইরে মারা যান।

তিনি আরো বলেন, নিহত ছিনতাইকারী নিজেকে মাহাদি হিসেবে দাবি করেন। প্রধানমন্ত্রী ও তার স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চান। কিন্তু নিজের স্ত্রীর কোনো ফোন নম্বর দিতে পারেননি। সৌভাগ্যবশত চট্টগ্রামে ছিলেন হলি আর্টিসানে কমান্ডো অভিযান চালানো লেফটেন্যান্ট ইমরুল। তিনি এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন। মাত্র আট মিনিটেই অভিযান শেষ হয়। এর আগে ছিনতাইকারীকে কথায় ব্যস্ত রাখেন এয়ার ভাইস মার্শাল মুফিদুল আলম।

এয়ার ভাইস মার্শাল মুফিদুল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‌আমি ছিনতাইকারীর সঙ্গে শুরু থেকেই কথা বলছিলাম। কথা বলার মাধ্যমে তাকে ব্যস্ত রাখার চেষ্টা করি। অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তি একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার দাবি জানায় আমাদের কাছে। তবে সেনা কমান্ডোদের বিশেষ অভিযানে অস্ত্রধারী ছিনতাইকারী পরাভূত হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সেনাবাহিনীর বিশেষ একটি কমান্ডো টিম এবং র‌্যাব, পুলিশ ও এপিবিএন সদস্যরা সম্মিলিতভাবে এই অভিযান চালায়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন লেফটেন্যান্ট ইমরুল, সঙ্গে ছিলেন র‌্যাব-৭ এর সিইও।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ বিমানের দুবাইগামী ময়ূরপঙ্খী উড়োজাহাজটি (বিজি-১৪৭) ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দুবাই যাওয়ার কথা ছিল। বেলা সাড়ে ৩টায় ঢাকা থেকে ছেড়ে চট্টগ্রাম আসার পথেই এক ছিনতাইকারী পিস্তল হাতে বিমানের ককপিটে প্রবেশের চেষ্টা করে। পাইলট ও কেবিন ক্রুরা বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে ফ্লাইটটি জরুরিভাবে শাহ আমানতে অবতরণ করান।

দুবাইগামী ফ্লাইট ময়ূরপঙ্খীতে যাত্রী হিসেবে ছিলেন চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মঈন উদ্দীন খান বাদল। তিনি বলেন, ‘ভেতরে একজন হাইজ্যাকার আছে। তিনি বাঙালি। হাইজ্যাকার শুরুতে ককপিটে প্রবেশের চেষ্টা করে। কিন্তু পাইলট কৌশলে তা হতে না দিয়ে বিমানের জরুরি অবতরণ করেন।’

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!