এপ্রিল ২৩, ২০২৪ ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

দ. এশিয়ার সর্বোচ্চ আকাশচুম্বী টাওয়ার শ্রীলঙ্কায়

১ min read

দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ আকাশচুম্বী টাওয়ারের উদ্বোধন করেছে শ্রীলঙ্কা। ১৬ সেপ্টেম্বর, সোমবার ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে নির্মিত লোটাস টাওয়ারের দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে। বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) আওতায় চীন এই টাওয়ারে অর্থায়ন করেছে মোট খরচের ৮০ ভাগ।

১৭ তলা বিশিষ্ট ৩৫০ মিটার উচু লেটাস টাওয়ারের অবস্থান দেশটির রাজধানী কলম্বোর প্রাণকেন্দ্রে। দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ আকাশচুম্বী এই টাওয়ারে রয়েছে একটি টেলিভিশন টাওয়ার, একটি হোটেল, একটি টেলিকমিউনিকেশন জাদুঘর, রেস্তোঁরা, অডিটরিয়াম, পর্যবেক্ষণ ডেক, একটি শপিং মল ও একটি কনফারেন্স সেন্টার।

লঙ্কান গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ৩০ হাজার ৬০০ বর্গমিটার এলাকাজুড়ে এই টাওয়ার নির্মাণে খরচ হয়েছে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি; যার ৮০ ভাগ অর্থায়ন করেছে চীন।

the-Lotus-tower

দেশটির সংবাদমাধ্যম কলম্বো পেইজ বলছে, চীন সরকারের উচ্চাকাঙ্ক্ষী বৃহত্তম উন্নয়ন প্রকল্প বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) আওতায় লোটাস টাওয়ার নির্মাণে ২০১২ সালে কলম্বোর সঙ্গে বেইজিংয়ের চুক্তি সাক্ষর হয়। চায়না ন্যাশনাল ইলেক্ট্রনিক্স ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন (সিইআইইসি) এই টাওয়ার নির্মাণের দায়িত্ব পায়।

বিআরআই প্রকল্পের সমালোচকরা বলছেন, ঋণের বেড়াজালে শ্রীলঙ্কাকে বন্দি করছে চীন। শ্রীলঙ্কার এই টাওয়ারের নির্মাণ কাজ এখনও শতভাগ শেষ হয়নি। তারপরও দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা এটি জনসাধারণের জন্য খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, আমরা এখনো এই প্রকল্প শেষ করতে পারিনি। কিন্তু আমরা সামনে এগিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। টাওয়ারের যেসব অংশের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে; সেগুলোতে জনগণের জন্য খুলে দেয়া হচ্ছে।

LOTUS-TOWER-1

বিপুল বিনিয়োগ এবং বিশ্বের সর্বাধিক জনসংখ্যাকে জড়িত করার পরিকল্পনা নিয়ে একুশ শতকের বৃহত্তম উন্নয়ন প্রকল্প বিআরআই; এটি চীনের প্রসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের একটি উচ্চাকাঙ্ক্ষী প্রকল্প। যা বৈশ্বিক ভূ-রাজনীতিতেও পরিবর্তন আনতে পারে।

বিআরআইয়ের আওতায় পাকিস্তানে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে চায়না-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডর প্রকল্প নির্মাণ করছে চীন; যা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ভেতর দিয়ে চলে গেছে।

সূত্র : দ্য হিন্দু, কলম্বো পেইজ।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!