আগস্ট ১৯, ২০২২ ৪:২৭ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

মার্কিন পণ্য বর্জনের ডাক ইন্দোনেশিয়ায়

চতুর্থ দিনের মতো জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন স্বীকৃতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায়। মার্কিন দূতাবাসের বাইরে এই বিক্ষোভে শামিল হন প্রায় ৮০ হাজার মানুষ। বিক্ষোভ থেকে মার্কিন পণ্য বর্জনের ডাক এসেছে।

গত ৬ ডিসেম্বর তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে ইসরায়েলের মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিন ধর্মের মানুষের কাছে পবিত্র বিবেচিত জেরুজালেমের পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাকে নিজেদের ভবিষ্যৎ স্বাধীন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে দেখতে চায় ফিলিস্তিন। আর এই সিদ্ধান্তে সায় রয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের। মার্কিন পরিকল্পনা ঘোষণার পর থেকেই ফিলিস্তিনসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মুসলিম জনসংখ্যার দেশ ইন্দোনেশিয়া। রাজধানী জাকার্তার ওই বিক্ষোভ থেকে কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার সাংবাদিক ডেসি আরিয়ান্তি জানিয়েছেন, ফিলিস্তিনিদের প্রতি সংহতি জানাতে বিক্ষোভকারীদের অনেকেই শহরের বাইরে থেকে এসেছেন।

আরিয়ান্তি বলেন, ‘নারী, পুরুষ আর শিশুরা ফিলিস্তিনের পতাকা ও ব্যানার নিয়ে মার্কিন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতে রোববার সূর্যোদয় থেকে জড়ো হয়েছেন।’ ইন্দোনেশিয়া অনেক আগে থেকেই স্বাধীন ফিলিস্তিনের সমর্থক।

মার্কিন পণ্য বর্জনের ডাক

ইন্দোনেশিয়া ওলামা কাউন্সিলের শীর্ষ আলেম আনোয়ার আব্বাস ওই বিক্ষোভে একটি লিখিত বিবৃতি পড়ে শোনান। তিনি দেশবাসীকে মার্কিন দেশটির সিদ্ধান্ত বদলানোর আগ পর্যন্ত ওই দেশের তৈরি পণ্য কেনা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

আব্বাস বলেন, ‘তাদের পণ্যে আস্থা রাখবেন না।’ আর হাজার হাজার নারী-পুরুষ, শিশু ফিলিস্তিনের পতাকা উড়িয়ে বর্জন-বর্জন ধ্বনি দিয়ে তাতে সম্মতি জানান।

জাকার্তা পুলিশের মুখপাত্র আর্গো ইয়োনো বলেন, বিক্ষোভকারীরা শান্তিপূর্ণভাবে জাতীয় স্মৃতিসৌধ থেকে মার্কিন দূতাবাস পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার র‍্যালি করেছে। স্থানীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, পুলিশের ধারণার চেয়ে বিক্ষোভকারীদের সংখ্যা দ্বিগুণ।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!