আগস্ট ২০, ২০২২ ৫:২১ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

ভারতের টানা জিডিপির পতন অব্যাহত

ভারতের টানা জিডিপির পতন অব্যাহত রয়েছে। এবার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) বৃদ্ধির হার কমে গিয়ে দাঁড়াল মাত্র ৪.৫ শতাংশ। শুক্রবার এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। এর আগে ২০১২-১৩ অর্থবর্ষের শেষ ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধির হার তলানিতে নেমে দাঁড়িয়েছিল ৪.৩।

গত দেড় বছর ধরে টানা নিম্নমুখী ভারতের জিডিপি। ৪.৫ শতাংশ ছয় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। গত অর্থবর্ষে এই জুলাই-সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে আর্থিক বৃদ্ধির হার ছিল ৭ শতাংশ। এ বছর জুনে শেষ হওয়া প্রথম ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশ নেমে যাওয়ার পর থেকেই আতঙ্ক শুরু হয় অর্থনীতি মহলে।

বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দাগতি, দেশের বাজারে নতুন শিল্প-বিনিয়োগের অভাব, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলোর খারাপ পারফরম্যান্স, বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্ত, কর্মসংস্থানে ছাঁটাই ও পড়তি-সব কিছুর মিলিত প্রভাবেই অর্থনীতি তথা বৃদ্ধির হারে এমন দুর্দশা বলেই মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

বৃদ্ধির হারে লাগাতার এই পতন এবং প্রথম ত্রৈমাসিকে ছয় বছরের সর্বনিম্ন বৃদ্ধির হার দেশটির আর্থিক মন্দার সম্ভাবনারই ইঙ্গিত দিচ্ছে। তবে জিডিপির এই পতনকে ‘মন্দা’ বলতে মানতে নারাজ ভারত সরকার। দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের দাবি, এটা ‘মন্দা’ নয় বৃদ্ধির হারে ‘শ্লথগতি’। যার অর্থ দাঁড়াই আর্থিক বৃদ্ধি আশানুরূপ নয়।

সারা বিশ্বে অর্থনীতির মন্থর গতির প্রভাবই এর জন্য দায়ী বলে বরাবরই দাবি করে করে আসছেন নির্মলা। তার বিশ্বাস, খুব শিগগিরই ঘুরে দাঁড়াবে ভারতের অর্থনীতি। বাজার চাঙা করতে কর্পোরেট করে ছাড়, ব্যাংক এবং টেলিকম সংযুক্তিকরণের মতো একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। কিন্তু তারপরও জিডিপির পতন রোখা যায়নি। তাই তো দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের এই জিডিপি বৃদ্ধির হার প্রকাশিত হওয়ার পর ফের অশনি সংকেত দেখছেন সংশ্লিষ্টরা।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!