ডিসেম্বর ৭, ২০২২ ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

গোপনে চীন সফর করলেন কিম জং উন !

২৬ মার্চ, সোমবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান কিম জং উন গোপনে চীন সফরে গেছেন বলে দাবি করছে কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। ২৬ মার্চ, স্থানীয় সময় রাত সাড়ে নয়টার দিকে মার্কিন বার্তা সংস্থা ব্লুমবার্গ একটি গোপন সূত্রের বরাত দিয়ে জানায়, বেইজিং শহরে উপস্থিত হয়েছেন কিম। তবে বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় এই সূত্রের পরিচয় তারা জানায়নি।

জাপানের কিয়োডো বার্তা সংস্থাও একটি গোপন সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, একটি বিশেষ ট্রেন উত্তর কোরিয়া থেকে চীনের দানদং সীমান্ত পার হয়েছে। এই ট্রেনেই সম্ভবত ছিলেন কিম। জাপানের নিপ্পন নিউজ নেটওয়ার্কের ফুটেজে হলুদ আড়াআড়ি দাগ দেওয়া একটি সবুজ ট্রেন দেখা যায়। ২০১১ সালে কিম জং উনের প্রয়াত পিতা কিম জং ইল এমনই একটি ট্রেনে করে বেইজিং এসেছিলেন।

নিজস্ব সূত্রের বরাত দিয়ে কিয়োডো জানিয়েছে, চীন এবং উত্তর কোরিয়ার মাঝে সম্পর্কের উন্নতির লক্ষ্যে এই সফরে গেছেন কিম।

গেস্ট হাউজ

বেইজিংয়ের এক রাষ্ট্রীয় অতিথিশালার আশেপাশে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ছবি: সিএনএন

কিমের চীন সফরের ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানালেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনইং।

আল জাজিরা জানিয়েছে, এ ব্যাপারে দক্ষিণ কোরিয়াও মুখ খোলেনি। রাষ্ট্রপতির কার্যালয় ব্লু হাউজ থেকে এক মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সরকার সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে এবং পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।’

চীনের সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে দানদং বাসিন্দারা জানায়, ট্রেন স্টেশনের আশেপাশে নিরাপত্তাকর্মীদের তৎপরতা দেখা গেছে এবং কিম জং উন এদিকে দিয়ে যাবেন এমন গুজব জানা গেছে।

সোমবার বিকেলের দিকে বেইজিং শহরের চাঙ্গান অ্যাভিনিউতে কোঠর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে পুলিশ। তিয়ানআনমেন স্কয়ার থেকে পর্যটকদের সরিয়ে নেওয়া হয় ওই সময়েই। সিএনএন জানায়, বেইজিংয়ের একটি অতিথিশালার আশেপাশেও কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই অতিথিশালায় অতীতে উত্তর কোরিয়ার সফররত সরকার প্রধানদের থাকার ব্যবস্থা করা হতো।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!