এপ্রিল ১৮, ২০২৪ ১:১৮ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ভারতকে নিষিদ্ধ করল ফিফা

১ min read
সতর্কবার্তা আগেই দিয়েছিল ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘গার্ডিয়ান’। গত জুনে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছিল, ফুটবল ফেডারেশনে সরকারি হস্তক্ষেপের কারণে ভারতকে নিষিদ্ধ করতে পারে ফিফা। এমন সতর্কবার্তা আগেই দিয়েছিল ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘গার্ডিয়ান’। এবার সেটাই সত্যি হলো।  ফিফার ওয়েবসাইটে এক বিবৃতির মাধ্যমে ঘোষণাটি দেওয়া হয় সোমবার রাতে।

‘তৃতীয় পক্ষের অনাকাঙ্ক্ষিত হস্তক্ষেপের কারণে তাৎক্ষণিকভাবে’ ভারত ফুটবল ফেডারেশনকে নিষিদ্ধ করেছে ফিফা।

আগামী অক্টোবরে ভারতে অনূর্ধ্ব-১৭ নারী বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। কিন্তু অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন (এআইএফএফ) নিষিদ্ধ হওয়ার মধ্যে টুর্নামেন্টটি ভারতে হবে কি না, তা অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গেল।

ভারতকে নিষিদ্ধ করার বিবৃতিতে ফিফা জানিয়েছে, ব্যুরো অব ফিফা কাউন্সিল সর্বসম্মতভাবে এআইএফএফকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ এই সংস্থায় তৃতীয় পক্ষের অনুচিত প্রভাবের ফলে ফিফা সনদের পরিষ্কার লঙ্ঘন হয়েছে।

ফিফা বিবৃতিতে আরও বলেছে, ‘এখন এআইএফএফ এর ক্ষমতায় রয়েছে কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স। এর বদলে যেদিন থেকে নির্বাচনের মাধ্যমে তৈরি হওয়া কমিটি এআইএফএফ-এর দৈনন্দিন কাজকর্ম দেখতে শুরু করবে, সেদিন থেকে এই নির্বাসনের শাস্তি উঠে যাবে।’

গত মে মাসে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট এআইএফএফে প্রশাসকদের একটি কমিটি (সিওএ) ঠিক করে দিয়েছিল। কিন্তু পরের মাসে এই কমিটি পরামর্শক হিসেবে আরেকটি কমিটি বাছাই করে। কিন্তু ফিফার শক্ত আপত্তিতে সেই কমিটি ভেঙে যায়।

সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয় ফুটবলের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে নানা পদক্ষেপ নিয়েছিল এআইএফএফ। সর্বস্তরে ফুটবলকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছিল সংস্থাটি। তবে এআইএফএফের দৈনন্দিন কার্যক্রমে তৃতীয় পক্ষের প্রভাব এবং এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ভারতীয় ফুটবলের অপূরণীয় ক্ষতি হবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

নিষেধাজ্ঞার ফলে ভারতের জাতীয় দল, ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (আইএসএল) এবং আই-লিগ ক্লাবগুলো ফিফা অনুমোদিত কোনো প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে না।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!