ডিসেম্বর ১, ২০২২ ১০:৫৩ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

মাঠে ধূমপান: সতর্ক করা হলো ক্রিকেটার শাহজাদকে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়ানোর আগে থেকেই আলোচনায় অক্রিকেটীয় ইস্যু। শুক্রবার নতুন করে আলোচনায় মিনিস্টার ঢাকা দলের আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহজাদ। মাঠে ধূমপান করে এই আলোচনার জন্ম দেন তিনি। পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে সতর্ক করা হয়েছে শাহজাদকে।

সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেছেন, ‘শাহজাদের মতো একজন ক্রিকেটারের কাছে এমন কিছু আমরা প্রত্যাশা করিনি। ক্রিকেট মাঠে এমন ঘটনা নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তাকে সতর্ক করা হয়েছে যেন ভবিষ্যতে এসব না ঘটে।’

শুক্রবার দিনের প্রথম ম্যাচটি ছিল সিলেট সানরাইজার্স আর ফরচুন বরিশালের মধ্যকার। এই ম্যাচটি পরিত্যক্ত হওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা ছিল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। বৃষ্টি থামলে এ ম্যাচের জন্য গা গরম করতে নামেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং মিনিস্টার ঢাকার ক্রিকেটাররা। সেখানে আফগানিস্তানের শাহজাদ দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ধূমপান করেন। এ সময় শাহজাদের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন তার জাতীয় দলের দুই সতীর্থ করিম জানাত ও ফজল হক ফারুকী।

করিম জানাত বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেললেও ফজল হক ফারুকী শাহজাদের সঙ্গে মিনিস্টার ঢাকায় আছেন। অনুশীলন নেটের পাশে দাঁড়িয়ে গল্প করছিলেন তারা তিনজন। গল্পের মাঝেই পকেট থেকে ইলেক্ট্রিক সিগারেট বের করে পান করতে শুরু করেন শাহদাজ।

মাঠে ধূমপান করা ক্রিকেটীয় নীতির বাইরে পড়ে। খেলার মাঠে ধূমপান সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। এজন্য সমালোচনা মুখে পড়তে হয় শাহজাদকে।

বিতর্ক অবশ্য নিত্য সঙ্গী শাহজাদের। ২০১৬ বিপিএলে খেলা চলার সময় সাব্বির রহমানের সঙ্গে শারীরিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে জরিমানা গোনেন ম্যাচ ফির ৩০ শতাংশ।

এছাড়া ডোপ পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়ে ২০১৭ সালে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন সব ধরণের ক্রিকেট থেকে। ২০১৮ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ব্যাট দিয়ে মাঠ আঘাত করায় দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞাসহ ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়। ২০১৯ সালে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নিয়ম ভাঙায় এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!