এপ্রিল ১৮, ২০২৪ ৫:৫৪ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার লেভান্ডোভস্কি

১ min read

চলতি মৌসুমে করোনাকালে ব্যালন ডি’অর পুরস্কার প্রদান থেকে বিরত ছিল ফরাসি ফুটবল ম্যাগাজিন ‘ফ্রান্স ফুটবল’। নয়তো রোনালদো-মেসিকে ছাপিয়ে রবার্ট লেভান্ডোভস্কির শিরোপা ছিনিয়ে নেওয়াটা ছিল কেবল সময়ের অপেক্ষা। পরবর্তীতে ইউরোপের বর্ষসেরা সম্মানে সম্মানিত হয়ে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটাতে হয়েছিল বায়ার্ন মিউনিখ স্ট্রাইকারকে।

তবে গত মৌসুমে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের সুবাদে এবার নতুন পালক জুটলো লেভান্ডোভস্কির মুকুটে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসিকে পিছনে ফেলে ২০২০ ফিফা দ্য বেস্ট সেরা ফুটবলারের (পুরুষ) সম্মান জিতে নিলেন বায়ার্ন তারকা। ২০১৯-২০ মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখকে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ও ঘরোয়া ত্রিমুকুট জেতাতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন পোলিশ স্ট্রাইকার। দলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতানোর পথে ১৫টি গোল করেছিলেন তিনি। বুন্দেসলিগায় তার নামের পাশে ছিল ৩৪টি গোল। সুতরাং, বর্ষসেরা ফুটবলারের তকমাটা যে পোলিশ স্ট্রাইকারের জন্য যথেষ্ট, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

লেভান্ডোভস্কির পাশে সেরা মহিলা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন ইংল্যান্ড এবং লিও তারকা লুসি ব্রোঞ্জ। তিন দশক পর লিভারপুলকে প্রিমিয়র লিগ এনে দেওয়ার পুরস্কার পেলেন লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লপ। বর্ষসেরা কোচের সম্মান পেয়েছেন জার্মান এই কোচ। জুরিখে এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলারের নাম ঘোষণা করেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক পুরস্কারপ্রাপ্তদের তালিকা-

বর্ষসেরা ফুটবলার (পুরুষ): রবার্ট লেভান্ডোভস্কি (পোল্যান্ড/ বায়ার্ন মিউনিখ)

বর্ষসেরা ফুটবলার (মহিলা): লুসি ব্রোঞ্জ (ইংল্যান্ড/ লিও)

বর্ষসেরা কোচ (পুরুষ): জার্গেন ক্লপ (লিভারপুল)

বর্ষসেরা কোচ (মহিলা): সারিনা উইগম্যান (নেদারল্যান্ড)

বর্ষসেরা গোলরক্ষক (পুরুষ): সারাহ বোউহাদ্দি (ফ্রান্স/ লিও)

বর্ষসেরা গোলরক্ষক (মহিলা): ম্যানুয়েল নুয়ের (জার্মানি/ বায়ার্ন মিউনিখ)

ফিফা পুসকাস অ্যাওয়ার্ড: সন হিউং মিন (টটেনহ্যাম বনাম বার্নলে)

বর্ষসেরা একাদশ: অ্যালিসন বেকার (গোলরক্ষক), ট্রেন্ট আলেকজান্ডার আর্নল্ড, সার্জিও রামোস, ভার্জিল ভ্যান ডাইক, আলফোন্সো ডেভিয়েস, কেভিন ডি ব্রুয়েনা, থিয়াগো আলকান্তারা, জোশুয়া কিমিচ, লিওনেল মেসি, রবার্ট লেভান্ডোভস্কি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!