জুন ২২, ২০২৪ ৭:৪৮ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

মাধুরীর গানে নেচে আইনি ঝামেলায় জ্যাকুলিন

১ min read

‘তেজাব’ ছবির ‘এক দো তিন’ গানে মাধুরী দীক্ষিতের নাচ আজও ভক্ত হৃদয়কে তোলপাড় করে যায়। সেইসময় এই গানটি তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো। সেই দর্শকপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখেই গানটি রিমেক করা হলো সম্প্রতি। ‘বাঘি ২’ ছবিতে এই গানের সঙ্গে নেচেছেন শ্রীলংকান সুন্দরী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। গানটি রিলিজ হওয়ার পর বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। এসেছে আলোচনাতেও। এরইমধ্যে গানটি দেখতে ইউটিউবে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন দর্শক। তবে গানের রিমেকে খুশি নন গানটির মূল কোরিওগ্রাফার সরোজ খান। তিনি গানটিতে জ্যাকুলিনের নাচ আগের গানটির কোরিওগ্রাফিকে ছোট করেছে বলে অভিযোগ জানিয়েছেন ‘তেজাব’ ছবির পরিচালক এন চন্দ্রের কাছে।

অভিযোগ পেয়ে চটেছেন এন চন্দ্র। তার গানের রিমেক গানটির বিরুদ্ধে তিনি আইনি ব্যবস্থা নিতে চলেছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমের সূত্রে জানা গেছে। পরিচালক এতটাই হতাশ যে, এই গান থেকে তার মন্তব্য, ‘এ যেন সেন্ট্রাল পার্ককে বোটানিক্যাল গার্ডেন করে তোলা হয়েছে!’ তার ছবির গান নিয়ে এতকিছু হয়ে গিয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়েছে নতুন গান। খ্যাতি-অখ্যাতি-প্রশংসা-সমালোচনা কুড়োচ্ছেন জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ। অথচ তিনি এসবের কিছুই জানতেন না। কোরিগ্রাফার সরোজ খানের থেকে পুরো বিষয়টি জানতে পারেন ‘তেজাব’ পরিচালক।

আর সব দেখেশুনে একেবারে তাজ্জব হয়ে যান। মাধুরীর সেই আইকনিক নাচের যে এমন কুৎসিত রিমেক হতে পারে তা তার কল্পনার বাইরে ছিলো বরে মন্তব্য করেছেন তিনি। তাই মনে কষ্ট নিয়ে আইনি পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার মতে, নতুন গানের কোথায় সেই মাধুরীর লাস্য, সৌন্দর্য! কোথায় সেই লাবণ্য! আর কোথায়ই বা নাচের সেই মিষ্টি ব্যাপার, যাতে মোহাবিষ্ট হয়েছিল তামাম দর্শক। রিংটোনের যুগ চালু হওযার আগেই যে সুর বহুজনের মনে রিংটোন হয়ে উঠেছিল, সে গান যে এমন পর্যায়ে যেতে পারে তা বোধহয় কেউ কল্পনাও করেননি।

এ গানে যে লাবণ্য ও দক্ষতার মাত্রা মাধুরী রেখে গিয়েছেন, তা টপকে যাওয়া সম্ভব নয় জ্যাকলিনের। মাধুরীর মতো নাচে দক্ষ অভিনেত্রীর পারফরম্যান্সের সামনে জ্যাকলিনের কষ্টকর চেষ্টা হাস্যকর হয়ে উঠেছে। মুখে হাসি ধরে রেখে তিনি যা করেছেন, তা জবরদস্ত শারীরিক কসরত হতে পারে, কিন্তু মাধুরীর ছিটেফোঁটা নেই তাতে। এই নাচের জন্য কোরিওগ্রাফার সরোজ খানের কাছে প্রায় মাসখানেক পড়েছিলেন মাধুরী। এতটাই তার ডেডিকেশন।

ধারণা করা হচ্ছে ‘বাঘি ২’ ছবির প্রযোজক-পরিচালক ও এই গানের কোরিওগ্রাফারের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন তিনি।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!