এপ্রিল ১৩, ২০২৪ ৯:৫৯ অপরাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

খালেদার জামিন আবেদন খারিজ

১ min read

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় জামিন নিয়ে বিদেশে চিকিৎসা করানোর জন্য যাওয়ার দাবিতে জামিন চেয়ে বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আদেশে আদালত বলেন, ‘তিনি সাজাপ্রাপ্ত আসামি, চাইলেও সাধারণ নাগরিকের মতো চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব না। তা ছাড়া আমরা এর আগে হাইকোর্টে জামিন আবেদন খারিজ করেছিলাম। এবারের জামিন আবেদনে নতুন কোনো গ্রাউন্ড নেই। তাই জামিন আবেদন খারিজ করা হলো।’

তবে, খালেদা জিয়া চাইলে মেডিকেল বোর্ডকে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তিনি চাইলে বোর্ডে নতুন কোনো চিকিৎসককেও অন্তর্ভুক্ত পারবেন।

রাষ্ট্রপক্ষ, আসামি ও দুদকের শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে এদিন খালেদার আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

শুনানির সময় রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মুরাদ রেজা, মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির ও ডেপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন, নিতাই রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বদরোদ্দোজা বাদল, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা, অ্যাডভোকেট আসিফা আশরাফি পাপিয়া, মো. কামরুল ইসলাম সজল, রফিকুল ইসলাম মেহেদী, আবদুল্লাহ আল মাহবুব, মির্জা আল মাহমুদ, মজিবুর রহমান মিঞা, ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী, ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি, ফজলুল করিম মন্ডল জুয়েল, মাসুদ আহমেদ সাইদ, একেএম এহসানুর রহমান, ফাইয়াজ জিবরান ও জিএম জাকির আক্তার।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি জামিন শুনানির এক পর্যায়ে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা জানাতে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

Comments

comments

More Stories

১ min read
১ min read
১ min read
error: Content is protected !!