ডিসেম্বর ২, ২০২০ ১:৩৮ পূর্বাহ্ণ || ইউএসবাংলানিউজ২৪.কম

ইউএস বাংলানিউজ করপোরেশন, নিউইয়র্ক

অগ্রসর পাঠকের বাংলা অনলাইন

যৌথ নেতৃত্বে চলছে বিএনপি : মির্জা ফখরুল

যৌথ নেতৃত্বে বিএনপি চলছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে মিট দ্য রিপোর্টার্স অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ের সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠিত হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের দেশনেত্রী দুই বছর ধরে জেলে। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেব দেশের বাইরে। এরকম একটা কঠিন সময়ে কিন্তু আমাদের ঐক্য অটুট আছে। এই ধরণের দলে যেটা হয় কেউ কেউ পদত্যাগ করে যায়…। এখনো দলের মধ্যে কোনো ভাগ হয়নি। আমাদের দল চলে যৌথ নেতৃত্বের মাধ্যমে। আমাদের স্থায়ী কমিটি বৈঠক প্রতি শনিবার হয় যেটা আগে কম হতো। এই মিটিং করে আমরা সিদ্ধান্ত নেই। আমরা মনে করি যে, এই কঠিন সময়ে বিএনপি যে ভূমিকা পালন করছে আমি মনে করি যথেষ্ট সঠিক ভূমিকা পালন করছে।

খালেদা জিয়া রাজনীতিতে সক্রিয় আছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি যে, উনি (বেগম খালেদা জিয়া) অ্যাকটিভ আছেন মানসিকভাবে এবং সি অলওয়েজ আওয়ার মাইন্ড। উনি রাজনীতির মধ্যে কিন্তু সবচেয়ে বড় প্রভাব নিয়ে আছেন। বেগম খালেদা জিয়া থেকে কখনো চলে যাননি এবং যাবেন না। তার (খালেদা জিয়া) যে অস্তিত্ব দেশের মানুষের মধ্যে এটা অত্যন্ত গভীরে। দেশনেত্রীর জন্য এখনো গ্রামের অনেকে রোজা রাখে যে, তিনি সুস্থ হয়ে তিনি যেন বেরিয়ে আসেন। আমরা মনে করি যে, উনি রাজনীতিতে আছে এবং থাকবেন অবশ্যই উনি অ্যাকটিভ হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই সরকার অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে উদ্দেপ্রণোদিতভাবে তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রেখেছে। এটা কোনো মতেই এটা গ্রহণযোগ্য না। তাকে জামিন পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে না, সুচিকিৎসা পর্যন্ত তিনি নিতে পারছেন না। অর্থাৎ বেগম খালেদা জিয়া বাইরে থাকলে সমস্যা হবে সেজন্য তাকে ভয় পায় বলে আটকিয়ে রাখার ব্যবস্থা করা। গুলশানে নিজের বাসায় খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য স্থিতিশীল আছে। আমি বিশ্বাস করি তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। তার চিকিৎসার সমস্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

বিএনপিকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়েরের ঘটনা সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, গতকাল যে ঘটনা ঘটেছে এটা অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা, এটা ন্যক্কারজনক ঘটনা। আমি তীব্র ভাষায় এর নিন্দা করছি। আমরা যারা রাজনীতি করি তারা সবসময় শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক চিন্তাভাবনা ও গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কাজ করি। এগুলো কখন হয় যখন দেশে কোনো গণতান্ত্রিক স্পেস থাকে না।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী প্রকাশিত অডিও সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাই এই সমস্ত অডিও-ভিডিও যেসব ফাঁস হয়- এটা বরঞ্চ তারা ভালো বলতে পারবেন যারা এগুলো নিয়ে ডিল করে। আমি এটা ‍শুনিওনি, জানিও না। তবে যেটা যেখানে যেভাবে আসুক এই পুরো ঘটনাটা আমি মনে করি যে, এগুলো আমরা সমর্থন করি না। এগুলোর পেছনে সরকারের হাত সবসময় থাকে। যারা এটাকে ম্যানিপুলেটেড করে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, নির্বাচন এখন প্রহসনে পরিণত হয়েছে। গতকাল ঢাকা-১৮ নির্বাচনের মধ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার তিনি বললেন যে, এই কমিশন এতো ভালো যে, আমেরিকার তাদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা উচিত। আমেরিকায় ৪/৫ দিন লাগে ফলাফল গণতে আর তারা ৪/৫ মিনিটে ফলাফল দিয়ে দিতে পারে। এর চেয়ে হাস্যকর কথা একজন সিইসির কাছ থেকে আসতে পারে এটা কল্পনাও করতে পারি না।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে বিএনপি মহাসচিবকে রিপোর্টার্স ইউনিটির ক্রেস্ট উপহার দেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

আরও পড়ুন

error: Content is protected !!