JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
‘৯০ শতাংশ সেবা ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে’

‘৯০ শতাংশ সেবা ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে’

আগামী ২০২১ সালের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ সেবার ৯০ শতাংশই তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টাসজীব ওয়াজেদ জয়। বুধবার বিকেলে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপি ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৬ এর প্রথম দিনে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে জয় এ কথা বলেন।

কনফারেন্সে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সজীব ওয়াজেদ জয়। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় কনফারেন্সে নেপাল, ভুটান, সৌদি আরবসহ ৭টি দেশের ৭ জন মন্ত্রী মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে অংশগ্রহণ করেন।

আগামী ২০২১ সালকে লক্ষ্য করে নেয়া বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা বলেন,৯০ শতাংশ নাগরিক সেবা ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে। চারটি ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ। ডিজিটাল সরকার, নাগরিক সেবা সংযুক্ত করা, মানব সম্পদ উন্নয়ন, আইটি শিল্প বিকাশ।

২০০৮ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরে সজীব ওয়াজেদ বলেন, অতীতে বাংলাদেশে দারিদ্র্যের হার ছিল ৪০ শতাংশ, এটি কমে এখন ২৩ শতাংশ। সাক্ষরতার হার ছিল ৪৯ শতাংশ, এটি এখন ৭১ শতাংশ, বিদ্যুৎ সেবা পেত ২৭ শতাংশ এখন পায় ৭৫ শতাংশ, ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল দশমিক ৪ শতাংশ এখন তা ৪০ শতাংশ, মোবাইল ব্যবহারকারী ছিল ২০ লাখ এখন তা এক কোটি ৩০ লাখের বেশি, সামজিক যোগাযোগ ব্যবহারকারী ছিল সামান্য এখন ২০ লাখের বেশি, ই সার্ভিস হাতে গোনা কয়েকটি ছিল এখন ২শরও বেশি সেবা পায় মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী তথ্য উপদেষ্টা বলেন, দেশের ৩০ লাখ গ্রাহক মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা নিচ্ছে, ২০০৯ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার এক কোটি ফলাফল এসএমএস প্রদান, ৫০ হাজার ই-টেন্ডার, স্মার্ট কার্ড বিতরণ চলছে।

জয় বলেন, দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষ মোবাইল নেটওর্য়াকের আওতায় এসেছে, এক কোটি ৩০ লাখের বেশি মোবাইল সংযোগ, দেশব্যাপি থ্রিজি নেটওয়ার্ক, ৬৪ মিলিয়ন মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারী রয়েছেন। এছাড়া জাতীয় হেল্প ডেক্স ৯৯৯ স্থাপনের কাজ চলছে।

এর আগে সকালে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক মেলা ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৬’ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ‘ননস্টপ বাংলাদেশ’ স্লোগানকে সামনে আগামীকাল শুক্রবার (২১ অক্টোবর) পর্যন্ত এই মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

৪০টি মন্ত্রণালয় ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে কী কী সেবা দিচ্ছে তার আদ্যোপান্ত তুলে ধরা হবে এখানে। এতে শীর্ষস্থানীয় শতাধিক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তাদের ডিজিটাল কার্যক্রম তুলে ধরবে। এতে মাইক্রোসফট, ফেসবুক, একসেন্সার, বিশ্বব্যাংক, জেডটিই, হুয়াওয়েসহ খ্যাতিমান প্রতিষ্ঠানের ৪৩ জন বিদেশি বক্তাসহ দুই শতাধিক বক্তা ১৮টি সেশনে অংশ নেবেন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!