ঢাকায় ২৮ ডিসেম্বর ‘ন্যাশনাল এফ কমার্স সামিট ২০১৯’

ঢাকায় ২৮ ডিসেম্বর ‘ন্যাশনাল এফ কমার্স সামিট ২০১৯’

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় তিন লাখ এফ- কমার্স উদ্যোক্তা রয়েছে, এর মধ্যে ৫০ ভাগের বেশি নারী। তাদের অংশগ্রহণে আগামী ২৮ ডিসেম্বর ঢাকার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ন্যাশনাল এফ কমার্স সামিট ২০১৯’। দিনব্যাপী আয়োজনে পণ্য প্রদর্শন ও নলেজ সেশন মিলিয়ে থাকবে নানান কিছু। ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি গীকি সোশ্যাল লিমিটেডের এই আয়োজনে সহায়তা করছে যৌথভাবে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়, একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)- আইসিটি ডিভিশন, বেসিস ও ই-ক্যাব

এফ-কমার্স শিল্পের ক্রমবর্ধমান মানোন্নয়ন, কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধি ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সম্মেলনে রাখা হয়েছে চারটি নলেজ সেশন। ইউটিউবারদের মতো কীভাবে ফেসবুকে ভিডিও শেয়ার করে আয় করা যায় তা নিয়ে দিকনির্দেশনা দেওয়া হবে একটিতে। কন্টেন্ট ক্রিয়েটর ও মেসেঞ্জার বট নিয়ে রয়েছে আলাদা সেশন। বর্তমান ফেসবুক উদ্যোক্তাদের বিক্রয় বৃদ্ধির কৌশল বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ জ্ঞানার্জনের সুযোগ থাকছে। ন্যাশনাল এফ-কমার্স প্রোগ্রামের মাধ্যমে এই শিল্পকে উৎসাহিত করতে পাঁচজন এফ-কমার্স উদ্যোক্তা এবং এই শিল্পের পাঁচজন পৃষ্ঠপোষককে পুরস্কৃত করা হবে।

আয়োজক প্রতিষ্ঠান গীকি সোশ্যাল লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মেহেদী হাসান সাগরের কথায়, ‘আমরা লক্ষ্য করেছি, আজকের তরুণরা বেশ বড় একটা সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটায় এবং সেটি নিছক বিনোদন ছাড়া আর কিছু দেয় না। সেই জায়গা থেকে আমরা তাদের সামনে তুলে ধরতে চাই, কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে ক্যারিয়ার গড়া ও এন্ট্রিপ্রিনিয়রশিপ গড়ে তোলা যায়। সেই লক্ষ্যে তৃতীয়বারের মতো আয়োজন করতে যাচ্ছি ন্যাশনাল এফ-কমার্স সামিট ২০১৯।’

সম্মেলনের প্রধান আর্থিক পৃষ্ঠপোষক, এসএমই ভাই’র চিফ অপারেশন অফিসার সদরূল হাসান বলেন, ‘বেকার সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক অবস্থান পরিবর্তনের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের তরুণরা এফ-কমার্সের বড় বাজার সৃষ্টি করেছে। এখন এর মান উন্নতকরণের মাধ্যমে কারিগরি দক্ষতা বাড়িয়ে নতুন বিক্রয় প্রসারের জন্য এসএমই ভাই সবসময় উদ্যোক্তাদের পাশে রয়েছে।’

Comments

comments

error: Content is protected !!